সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলের পরিচালককে দুদকের তলব

0
8

মেডিকেল যন্ত্রপাতি কেনাকাটায় অনিয়ম ও শত কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়াকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রোববার (১লা ডিসেম্বর) দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে পাঠানো তলবি নোটিশে আগামী ৫ ডিসেম্বর তাকে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য প্রদানের জন্য বলা হয়েছে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। দুদকের উপ-পরিচালক শাসছুল ইসলাম সই করা চিঠির সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়। উক্ত নোটিশে উত্তম কুমারকে জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট ও ২০১৫-১৬ অর্থবছর থেকে ২০১৮-১৯ অর্থবছর পর্যন্ত মেডিকেল কলেজের যন্ত্রপাতি ক্রয়ের তালিকা ও ব্যয়িত অর্থের হিসাবের নথিপত্র সঙ্গে নিয়ে আসার জন্য বলা হয়েছে। কেনাকাটায় দুর্নীতির অভিযোগ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ রয়েছে। উল্লেখ্য, আজ ১ ডিসেম্বর দৈনিক একটি পত্রিকার এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে উঠে আসে উত্তম কুমারের দুর্নীতির চিত্র। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কেনাকাটায় শুধু অনিয়ম আর অনিয়ম। একটি ওটি লাইটের সরকার নির্ধারিত মূল্য প্রায় ৬ লাখ টাকা হলেও তা কেনা হয়েছে ৯৬ লাখ টাকায়। অর্থাৎ ১৬ গুণ দামে কেনা হয়েছে এটি। এভাবে বিভিন্ন চিকিৎসাসামগ্রী কেনায় হাতিয়ে নেয়া হয়েছে বিপুল অঙ্কের অর্থ। আর এসব অনিয়মের প্রায় সবই করা হয়েছে হাসপাতালের পরিচালক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়ার নেতৃত্বে। এজন্য তিনি গড়ে তুলেছেন একটি সিন্ডিকেট ও সন্ত্রাসী বাহিনী। দুর্নীতির অভিযোগে বিভাগীয় মামলায় তার সাজা হলেও তিনি বহাল তবিয়তেই আছেন। শুধু তাই নয়, চিকিৎসক হিসেবে দুটি ‘ডক্টরস কোড’ ব্যবহারের প্রমাণও আছে তার বিরুদ্ধে। এসব অনিয়মের প্রমাণ যুগান্তরের কাছে আছে। যদিও তিনি এর সবই অস্বীকার করেছেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY