বিপদসীমা অতিক্রম করেছে খোয়াই-চেঙ্গী ও মুহুরী নদীর পানি

0
8

বিপদসীমার ১৫০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে হবিগঞ্জে খোয়াই নদীর পানি। উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে মঙ্গলবার (১২ জুন) মধ্যরাত থেকে নদীতে পানি বৃদ্ধি পায়।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. তাওহিদুল ইসলাম জানান, খোয়াই নদীর উৎপত্তিস্থল ভারতের ত্রিপুরায় বৃষ্টি হওয়ার কারণে হঠাৎ মঙ্গলবার থেকে নদীতে পানি বাড়তে থাকে। রাতে পানি বিপদসীমা ছাড়ায়।

বুধবার (১৩ জুন) সকাল ৮টায় নদীর পানি বিপদসীমার ১৫০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। খোয়াই নদীর বাংলাদেশে প্রবেশমুখে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ গেট খুলে দেয়ায় পানি আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

এছাড়া ফেনীর মুহুরী নদীর পানিও বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে এবং বাধ ভেঙ্গে অন্তত ১০ টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। মৌলভীবাজারে মনু ও ধলাই নদীর বাঁধে ৭ টি স্থানে ভেঙ্গে ৩ ইউনিয়নের প্রায় শতাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এদিকে, টানা দুই দিনের বৃষ্টিতে খাগড়াছড়িতে অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে চেঙ্গী নদীর পানি। এ অস্বাভাবিক পানি বাড়ায় জেলা শহরে প্লাবিত হয়েছে নতুন নতুন অনেক এলাকা। এসব এলাকায় কোথাও কোমর সমান, কোথাও গলা আবার কোথাও হাঁটু সমান পানি উঠেছে।

জেলা শহরের মাষ্টার পাড়া, ভাংগা ব্রিজ সড়কসহ কিছু স্থান প্লাবিত হওয়ায় স্থানীয়রা বলছেন এটিই স্মরণকালের ভয়াবহ ঘটনা। অন্যান্য সময় বৃষ্টিতে নদীর পানি বাড়লে জেলা শহরের কিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। তবে তা বেশি সময় দীর্ঘায়িত হয় না।

তবে এবছরে নিম্নাঞ্চল ছাড়িয়েও অনেক উঁচু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দিও হয়েছে অতীতের থেকে সবচেয়ে বেশি লোক। গ্রাম ছাড়িয়ে শহরের কয়েকটি সড়ক তলিয়েছে টানা দুই দিনের এ বৃষ্টিতে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY