ট্রেন ছাড়ছে ৮ ঘণ্টা দেরিতে, চরম ভোগান্তিতে যাত্রীরা

0
76

প্রিয়জনের সাথে ঈদ করতে রাজধানীর কমলাপুর ট্রেন স্টেশনে ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমেছে। এরই মধ্যে ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। প্রতিটি ট্রেন গড়ে ৮-১০ ঘণ্টা দেরিতে আসছে স্টেশনে। যাত্রীরা পড়েছে চরম দুর্ভোগে।

জানা গেছে, নড়বড়ে রেলপথ ও ধারণক্ষমতার চেয়ে তিন-চার গুণ বেশি যাত্রী নিয়ে চলায় ট্রেনের গতি বেশ কম। এছাড়া শুক্রবার (৯ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু সেতুর পাশে সুন্দরবন এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুতির ঘটনায় পশ্চিমাঞ্চলের রেলপথ বন্ধ ছিল প্রায় আড়াই ঘণ্টা। সব মিলিয়ে এদিন ট্রেনের সিডিউল বিপর্যয় ছিল চরমে। এতে চরম ভোগান্তি আর সীমাহীন বিড়াম্বনায় পড়েছে ঘরমুখো মানুষ।

শনিবার (১০ আগস্ট) সকালে কমলাপুর রেলস্টেশনে রাখা ডিসপ্লেতে দেয়া ট্রেনের সময়সূচি অনুযায়ী, রাজশাহীগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনটি সাড়ে ৮ ঘণ্টা দেরিতে আনুমানিক বেলা ২টা ৩০ মিনিটে ছেড়ে যাবে। খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ৬ ঘণ্টা দেরিতে আনুমানিক দুপুর সাড়ে ১২টায় ছেড়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া চিলাহাটিগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ৮ ঘণ্টা দেরিতে আনুমানিক বিকেল ৪টায় এবং রংপুরগামী রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি বিলম্ব হবে উল্লেখ করা থাকলেও সম্ভব্য সময় জানানো হয়নি।

তবে রেলসূত্র জানায়, প্রায় ৮ ঘণ্টা দেরিতে আনুমানিক বিকেল ৫টায় ছেড়ে যেতে পারে রংপুর এক্সপ্রেস। তবে এ সময় পরিবর্তনও হতে পারে।

উল্লেখ্য, গত ১ আগস্ট যারা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট সংগ্রহ করেছিলেন তারাই আজ ট্রেনযোগে বাড়ি ফিরছেন। কিন্তু ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ের কারণে এসব যাত্রীরা সীমাহীন বিড়াম্বনায় পড়েছেন।

রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রী সিদ্দিকুর রহমান বলেন, গত ১ আগস্ট ১৩ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে এসি সিট পেয়েছিলাম। আজ মা-স্ত্রী, সন্তান নিয়ে স্টেশনে এসে জানতে পারলাম সকাল ৯টার ট্রেন বিলম্ব হবে। তবে কত বিলম্ব হবে উল্লেখ করা নেই। শুনলাম ৮ ঘণ্টা বিলম্ব হয়ে বিকেল ৫টায় ছেড়ে যেতে পারে। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সকাল সকাল নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টেশনে এসেছি। এখন বাসায় ফিরে যেয়ে আবার স্টেশনে আসার কোনো উপায়ও নেই। এ অবস্থায় মনে হচ্ছে ঈদে বাড়ি যাওয়াই উচিত নয়।

কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার আমিনুল হক বলেন, গতকাল টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব প্রান্তে ঢাকা থেকে খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ কারণে দীর্ঘ সময় ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় সব ট্রেনের ওপর এর প্রভাব পড়েছে। যে কারণে ট্রেনের শিডিউল ঠিক নেই।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY