গণমাধ্যমে আমার বক্তব্য ভুলভাবে এসেছে!

0
71
চীন যাচ্ছে আ’লীগ প্রতিনিধিদল, এজেন্ডায় রোহিঙ্গা
fata kesto

সড়ক দুর্ঘটনায় হাত হারানোর বিষয়ে ‘ছেলেটার ভুল থাকতে পারে’ বলে দেয়া বক্তব্য ভুলভাবে গণমাধ্যমে এসেছে বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

সড়ক মন্ত্রী বলেন, তিনি ছেলেটা বলতে হাত কাটা পড়ে মাথায় আঘাত লেগে প্রাণ হারানো রাজীবের কথা বলেননি। তিনি বলেছেন, গোপালগঞ্জে হাত হারানো খালিদ হাসান হৃদয়ের কথা। কিন্তু হৃদয়ের নাম তাৎক্ষণিকভাবে মনে না পড়ায় কেবল ছেলেটা বলেছিলেন। আর গণমাধ্যম কর্মীরা ভেবে নিয়েছেন তিনি রাজীবের কথা বলেছেন।

বুধবার (১৮ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর হাতিরঝিলে বিআরটিএর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিদর্শনে যান ওবায়দুল কাদের। এ সময় গণমাধ্যম কর্মীরা তার কাছে সড়কে যুবকের হাত হারানো প্রসঙ্গে জানতে চান।

জবাবে কাদের বলেন, ‘ছেলেটার হাত চলে গেছে, একটা ইমপরটেন্ট কাগজে আমি দেখলাম, সড়ক ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করা হয়েছে। এর সঙ্গে সড়ক ব্যবস্থাপনার কী সম্পর্ক?’

তাহলে কে দায়ী? এমন প্রশ্নে কাদের বলেন, ‘চালকদের সচেতনতা খুব জরুরি। এখানে সড়কের কোনো সম্পর্ক নেই। গাড়ি ওভারটেক করতে গিয়ে একজনের হাত গেল, এর সঙ্গে সড়কের কী সম্পর্ক?’

সম্প্রতি সড়কে দুর্ঘটনায় হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে দুটি। গত ৩ এপ্রিল ঢাকায় দুটি বাসের মাঝে পড়ে হাত বিচ্ছিন্ন হয় একটি বাসেন দরজায় দাঁড়ানো রাজীব। পরে ১৬ এপ্রিল প্রথম প্রহরে হাসপাতালে মারা যান তিনি।

আর রাজীবের মৃত্যুর দিন গোপালগঞ্জে হাত হারান হৃদয়। তিনি একটি বাসের চালকের সহকারী ছিলেন। তিনি বাসের পেছনের আসনে বসেছিলেন হাত বাইরে রেখে। এ সময় একটি ট্রাক বাসটিকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় এবং জানালা সজোরে এসে হৃদয়ের হাত কেটে দেয়।

হৃদয় বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

কাদের জানান, তিনি হৃদয়ের বিষয়ে কথা বলেছিলেন। বলেন, ‘আমি না বললেও পত্রিকাগুলো ভুলভাবে আমার বক্তব্য উপস্থাপন করেছে।’

রাতে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলন করেন সড়ক মন্ত্রী। বলেন, ‘৯৬ থেকে এ পর্যন্ত আমি ১২ বছরে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছি। অনেকে অনেক সমালোচনা করেছেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত কারও বিরুদ্ধে মামলা করিনি। রাজনীতি করতে গেলে ভুল হয়; আমি নিজেও গঠনমূলক সমালোচনা পছন্দ করি। মানুষ মাত্রই ভুল হয়।’

কাদের বলেন, ‘কোনো কোনো অনলাইনে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, ‘রাজীবের মৃত্যুতে তার ভুল থাকতে পারে’। আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি, আমি রাজীবের নাম নিয়ে তার ভুল হয়েছে এমন কোন কথা আমি বলিনি।’

‘বাসে গোপালগঞ্জের যে হেলপার ছিল তাকে দিয়ে শুরু করি, ওই হেলপার হৃদয়ের ভুল হতে পারে এমন বলছি। তাৎক্ষণিকভাবে ওই হেলপারের নাম মনে না পড়ায় বলেছি তার ভুল থাকতে পারেন। কিন্তু তার ক্ষেত্রেও ভুল করেছে এমন বলিনি।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY