পালিয়ে যাওয়া স্ত্রীর নামে দুবাই শাসকের মামলা

0
46

দুবাই শাসক মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুমের ষষ্ঠ স্ত্রী প্রিন্সেস হায়া বিন্তে আল হুসেইন প্রায় ৩৩২ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যান। জর্ডানের বাদশাহ আবদুল্লাহর বোন প্রিন্সেস হায়া পালানোর পর দুবাই শাসকের কাছে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিশও পাঠান।

বিপুল পরিমাণ অর্থ নিয়ে পালানো দুবাই শাসকের স্ত্রী প্রিন্সেস হায়ার বিরুদ্ধে লন্ডনের পারিবারিক আদালতে একটি মামলা করা হয়েছে। চলতি মাসের শেষ দিকে মামলাটির শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। যুক্তরাজ্যের রয়্যাল কোর্ট বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান তাদের এক অনলাইন প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী ৩০ ও ৩১ জুলাই শুনানি অনুষ্ঠিত বে। শুনানির দিন উপস্থিত থাকবেন দুবাইয়ের শাসক মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম। লন্ডনের প্রখ্যাত আইনি পরামর্শ প্রতিষ্ঠান লেডি হেলেন ওয়ার্ড অব স্টুয়ার্টস তার পক্ষে আদালতে লড়বে। তবে মামলার বাদী-বিবাদী এ সম্পর্কে কিছু বলেননি।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়েছে, দুবাইয়ে থাকা জার্মানির কোনো কূটনীতিক প্রিন্সেস হায়াকে পালাতে সাহায্য করেছে। আর এই দাবির পক্ষে যুক্তি দেখিয়ে বলা হচ্ছে, দেশ দুটির মধ্যে বর্তমানে কূটনৈতিক সম্পর্কের চরম টানাপোড়েন চলছে।

আমিরাতের বেশ কিছু গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, প্রিন্সেস হায়া লন্ডনে পালিয়ে গেছেন। তিনি ১১ বছরের সন্তান জলিলা ও সাত বছরের জায়েদকে নিয়ে প্রথমে জার্মানিতে পালিয়ে যাওয়ার পর দুবাইয়ের শাসকের কাছে বিবাহ বিচ্ছেদের নোটিশ পাঠান।

এদিকে জর্ডানের রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়েছে, দুবাই শাসকের পারিবারিক গোপনীয় বিষয় জেনে যাওয়ার কারণে প্রিন্সেস হায়া প্রাণ হারানোর শঙ্কায় আছেন। তাই সব মিলিয়ে বিষয়টি কতদূর গড়াবে তা জানা যাবে আদালতের শুনানিতে।

২০০৪ সালে তিনি দুবাইয়ের শাসককে বিয়ে করেন প্রিন্সেস হায়া। তার ৬৯ বছর বয়সী ধনকুবের দুবাই শাসকে ষষ্ঠতম স্ত্রী তিনি। মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং একই সঙ্গে দেশটির প্রধানমন্ত্রীও

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY