ক্ষমা চাইলেন কোহলি

0
37

ভারতের বিশাল রানের পাহাড়ে টপকাতে যেরকম সাহসী ব্যাটিংয়ের প্রয়োজন ছিল সেরকম কিছু দেখাতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। তবে ৩৫৩ রানের বিশাল টার্গেটে খেলতে নেমে ওয়ার্নার- স্মিথ-উসমান খাজাদের ব্যাটিং এক সময় অস্ট্রেলিয়া শিবিরে আশা জাগিয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ৩১৬ রানে অলআউট হয়েছে টিম স্টিভ ওয়াহর উত্তরসূরীরা। ভারতের কাছে তারা হেরে গেছে ৩৬ রানে।

এই ম্যাচে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির জেরে অস্ট্রেলিয়ার দুই সেরা ক্রিকেটার স্টিভেন স্মিথ আর ডেভিড ওয়ার্নারকে চিটার বলে ডাকে ভারতীয় সমর্থকরা।

ভারতের ইনিংস চলাকালেই বাউন্ডারি লাইনে দাঁড়িয়ে ফিল্ডিং করছিলেন স্টিভেন স্মিথ। তখন গ্যালারি থেকে তাকে ‘চিটার, চিটার’ বলে গালি দেয়ার সঙ্গে উত্যক্ত করারও চেষ্টা চলছিল।

কিন্তু ওই সময় হঠাৎই স্টিভেন স্মিথের পক্ষে দাঁড়ান বিরাট কোহলি। ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে হাত দিয়ে ইশারা করে ভারতীয় সমর্থকদেরকে নিষেধ করেন স্মিথদের গালি দিতে। কোহলির আহ্বানে সমর্থকরা ধুয়ো ধ্বনি দেয়া বন্ধ করে ঠিকই। কিন্তু কোহলির মধ্যে আত্মসমালোচনা বোধটা থেকে যায়।

যে কারণে ম্যাচ শেষে জয়ী দলের অধিনায়ক হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে এসে বিরাট কোহলি মিডিয়ার মাধ্যমে ভারতীয় সমর্থকদের পক্ষ থেকে স্টিভেন স্মিথের ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে কোহলি বলেন, ‘কি ঘটেছিল সেটা তো অনেক আগের। সে এখন তার নিজের দল এবং দেশের জন্য সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলার চেষ্টা করছে। মাঠের মধ্যে অনেক কিছুই আছে, যেগুলো নিয়ে আমরা কথা বলতে পারি, কাজ করতে পারি। কিন্তু এটা তো কোনোভাবেই দেখতে চাই না যে, একজন ব্যক্তিকে নিয়মিতই আঘাত করে যাওয়া হচ্ছে কোনো একটা পুরনো ভুল ধরে।’

ভারতীয় সমর্থকদের পক্ষ থেকে এ ধরনের আচরণ কোনোভাবেই আশা করেন না কোহলি। তিনি বলেন, ‘আমি চাই না ভারতীয় সমর্থকরা বাজে কোনো নজির স্থাপন করুক। আমি তার কষ্টটা অনুধাবন করেছি এবং তাকে বলেছি, ভারতীয় সমর্থকদের পক্ষ থেকে তোমার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আমার মতামত হচ্ছে, এ ধরনের (সমর্থকদের পক্ষ থেকে) আচরণ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY