আজ কোন দল ফাইনালের টিকিট জিতবে?

0
62

রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের প্রথম ম্যাচে বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে ফ্রান্স। আজ মঙ্গলবার (১০ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টায় জমজমাট ফুটবল লড়াই দেখতে চলেছে গোটা বিশ্ব। সে রকমই একটা ম্যাচ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বেলজিয়ামের সোনালি প্রজন্মের ফুটবলের সঙ্গে ফ্রান্সের ফুটবল নবজাগরণের লড়াই। এই ম্যাচই হয়তো ঠিক করে দেবে এবারের বিশ্বকাপ কার ঘরে যাবে।

এবারের বিশ্বকাপে বেলজিয়াম এখন দুরন্ত ফর্মে আছে। পাশাপাশি ওদের সাপোর্ট স্টাফের তালিকায় রয়েছে ধুরন্ধর কোচ রবের্তো মার্তিনেস আর সহকারী কোচ থিয়েরি অঁরি। ভাগ্যটাও যে সঙ্গে আছে বেলজিয়ামের, সেটা তো কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচেই বোঝা গিয়েছে।

অনেকেই মনে করেছিল বেলজিয়ামকে হারিয়ে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে সেমিফাইনাল খেলবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। কিন্তু সেটা হয়নি। ফুটবল খেলা যে এমনেই। আপনাকে মেনে নিতেই হবে সেটা। তবে এটাও বলতে হবে, চলতি বিশ্বকাপে বেলজিয়ামকে সত্যিই অপ্রতিরোধ্য দেখা যাচ্ছে। অপরদিকে, ফ্রান্সকেও তাই।

দুটি দলের মধ্যে পার্থক্যটা কিন্তু খুবই কম। দু’দলের কোচই ধুরন্ধর- রবের্তো মার্তিনেস (বেলজিয়াম) এবং দিদিয়ে দেশঁ (ফ্রান্স)।

ফ্রান্স কোচ দেশঁ ফুটবল জীবনে এক জন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ছিলেন। মার্সেই, জুভেন্তাস, চেলসি, ভ্যালেন্সিয়ার মতো ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলোয় খেলেছেন। ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার হিসেবে দক্ষ ছিলেন দেশঁ। খেলেছেন এরিক কঁতোনা, জিনেদিন জিদান এবং পরে অঁরির সঙ্গেও। তাই বলা যায়- মার্তিনেস এবং অঁরির জন্য লুকোনো কিছু তাস সেমিফাইনালের এই ম্যাচে ঠিক বের করবেন দেশঁ।

দেশঁ এর কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপ জেতার অভিজ্ঞতা আছে ফ্রান্সের হয়ে। দেশঁ নিশ্চয়ই চাইবেন, কোচ হিসেবেও বিশ্বকাপজয়ীদের তালিকায় নাম তুলতে।

রাশিয়া বিশ্বকাপে বেলজিয়াম ম্যাচের স্কোরগুলোর ওপর চোখ বোলালে দেখা যাবে। পাঁচ ম্যাচে ১৪ গোল কিন্তু বেলজিয়াম আক্রমণের শক্তিটাই দেখিয়ে দিচ্ছে। কিন্তু বেলজিয়ামের রক্ষণে একটু ফাঁকফোকর দেখা যাচ্ছে। দেশঁ হয়তো এই দুর্বলতার ফায়দা লুটতে চাইবেন। রক্ষণে বেলজিয়াম তিন জনকে কাজে লাগাচ্ছে- ভার্তোমেন, কোম্পানি এবং আল্দারওয়েল্দ। তবে এমবাপে, গ্রিজ়ম্যান, এবং দেম্বেলেকে রুখে দেয়ার ক্ষমতা বেলজিয়াম ত্রয়ীর আছে কিনা, সেটাই আজ দেখা যাবে।

আজকের ম্যাচে ফরাসিরা হয়তোবা উমতিতি এবং ভারান সেন্ট্রাল ডিফেন্ডারের ভূমিকায় নামবে। এদের সঙ্গে সামনে থেকে কঁতে। অ্যাজারের গতি সামলানোর জন্য কঁতে হয়তো একটু ডান দিকে চেপে খেলবে। মাঝমাঠে পোগবার সঙ্গে থাকবে মাতুইদি। আর মাঝমাঠ এবং স্ট্রাইকারের মধ্যে যোগসূত্র হবে গ্রিজ়ম্যান। গ্রিজ়ম্যানের কাজ হবে আক্রমণের বল তৈরি করে দেয়া। আক্রমণে দেম্বেলে ও এমবাপে বাঁ দিক-ডান দিক করে খেলতে পারে। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে এমনটা দেখা যেতেই পারে।

অপরদিকে, ফরাসি দুর্গে হানা দেয়ার চেষ্টা করবে বেলজিয়ামের দে ব্রুইন, লুকাকু এবং অ্যাজাররা।

তাই বলা যায়, আজ ফুটবলের একটা চরম দ্বৈরথ দেখবে গোটা বিশ্ব। এখন দেখা যাক, কে কাকে হারিয়ে সামনে এগিয়ে যায়। আর ফাইনালের টিকিট জিতে। মাঠে সেরা দলটাই জিতবে। ফলাফল দেখতে তাই রাত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY