সেই ধর্ষক ‘বাবা’ রাম-রহিম জামিন পেয়েছেন!

0
30
এখন অন্য কাঁদুনি গাইছে হানিপ্রীত, বিপদ এড়াতে পারবে কি
এখন অন্য কাঁদুনি গাইছে হানিপ্রীত, বিপদ এড়াতে পারবে কি

ধর্ষণ এবং পুরুষদের অঙ্গছেদনের দায়ে গত বছর জেলে ঢোকানো হয়েছিল ভারতের স্বঘোষিত ধর্মগুরু রাম রহিমকে। গত আগস্টের ওই ঘটনার পর তার অনুগত শিষ্যরা রাস্তায় তাণ্ডব চালিয়েছিল। নিহত হয়েছিল মানুষ। সেই ধর্ষক বাবা রাম রহিম এবার জামিন পেয়ে গেলেন! তাকে জামিন দিয়েছে দিল পাঁচকুলার বিশেষ সিবিআই আদালত।

জামিন পেলেও এখনই জেল থেকে রেহাই পাচ্ছেন না রাম রহিম। সাচ্চা সউদা ডেরার দুই শিষ্যকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। সেই মামলায় তার কারাদণ্ডের শাস্তি বহাল রয়েছে।

২৩ আগস্ট সিবিআইয়ের স্পেশাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাম রহিমের জামিনের আবেদন খারিজ করেছিলেন। এরপর সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সিবিআই বিচারক জগদীপ সিংয়ের কাছে আবেদন করেন রাম রহিম। শুক্রবার (৫ অক্টোবর) তার জামিন মঞ্জুর করা হয়।

দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণের অভিযোগে দুটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত করা হয় রাম রহিমকে। এরপর নেওয়া হয় রোহতক শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরের সানোরিয়া কারাগারে। রাম রহিমকে দুটি মামলায় ১০ বছর করে ২০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন সিবিআই আদালত।

রাম রহিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে শুরুর দিকে তার পালিত কন্যা হানিপ্রীতকে ধর্ষণ করেছিলেন। ডেরার প্রাক্তন অনুসারীদের দাবি, রাম রহিমের সার্বক্ষণিক সহযোগী হওয়ার আগে হানিপ্রীত তার দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, জামিন পেলেও চৌদ্দশিকের পেছনেই থাকতে হবে ধর্ষক বাবাকে। কারণ তাকে জামিন দেওয়া হয়েছে অনুগামীদের যৌনাঙ্গ কেটে খোঁজা বানিয়ে দেওয়ার মামলায়। কিন্তু তার বিরুদ্ধে যে ধর্ষণের অভিযোগ, তার দায়ে তাকে ২০ বছরের জন্য জেল খাটতেই হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY