সকল বিরম্বনা থেকে বাঁচতে আজই ইন্সটল করুন ট্রু-কলার!

0
99

মোবাইল ফোনের জগতে বর্তমানে ট্রু কলার অ্যাপ যথেষ্টই জনপ্রিয়। কিন্তু এই অ্যাপের মাধ্যমে এমন অনেক কাজ করা যায় যা আপনি স্বপ্নেও ভাবতে পারবেন না। সাধারণভাবে ট্রু কলারের মাধ্যমে কোনও নম্বর যেমন চেনা যায়, তেমনই এর মাধ্যমে ভিডিও কল, ফ্ল্যাশ ম্যাসেজ ও অনলাইন পেমেন্টও করা যাবে। কিন্তু তা কিভাবে সম্ভব আসুন জেনে নেয়া যাক-

১. ট্রু কলার ইনস্টল করার শুরুতে আপনাকে নিজের একটি প্রোফাইল তৈরি করতে হবে। সেখানে যেমন নিজের ছবি দেওয়া যাবে, তেমনই দেয়া যাবে ই-মেল বা ওয়েব সাইট। এখন থেকে আপনি আপনার গুগল ও ফেসবুক অ্যাকাউন্টও ট্রু কলারের সঙ্গে সংযুক্ত করতে পারবেন।

২. ট্রু কলার যদি কোনও নির্দিষ্ট নম্বরকে চিহ্নিত করে ব্লক লিস্টে ফেলে দেয়, তাহলে আপনি অফলাইন থাকলেও তা আপনাকে নির্দেশ দেবে।

৩. অতিরিক্ত প্রোমোশনাল কলে আপনি বিরক্ত? ট্রু কলারের মাধ্যমে অতি সহজেই আপনি সেগুলিকে ব্লক করে দিতে পারেন। ব্লক করার পর আপনাকে একটি লাল রংয়ের কার্ড দেখাবে মোবাইলে, যেখানে ওই ব্লক করা নম্বরগুলি দেখাবে।

৪. ট্রু কলারকে আপনার ডিফল্ট ডায়েলার করে রাখার জন্য আপনাকে প্রধান আইকনে ক্লিক করতে হবে। সেখান থেকে সেটিংস-এর গিয়ে আপনি মিস্ড কল নোটিফিকেশন চালু করতে পারেন। আপনার ডিফল্ট ম্যাসেজিং অ্যাপ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন ট্রু কলারকে। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ফোনে স্প্যাম ম্যাসেজ আসাও আটকাতে পারবেন।

৫. গুগলের ভিডিও কলিং অ্যাপের মাধ্যমে অতি সহজেই আপনি ট্রু কলারে ভিডিও কল করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে ট্রু কলারে গিয়ে সেখনে কোনও নম্বর ক্লিক করলেই একটি পেইজ খুলে যাবে। সেখান থেকেই সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে কল, ম্যাসেজ, ভিডিও কল, এডিট বা ব্লক করতে পারবেন আপনি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY