যে কারণে বিয়ে করেননি অটল বিহারি বাজপেয়ী

0
15

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ী আর নেই। বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৫ মিনিটে নয়াদিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনিস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স হাসপাতালে (এইমস) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এই সাবেক প্রধানমন্ত্রীর কথা উঠলেই তিনি কেন বিয়ে করেননি সেই প্রসঙ্গও উঠে আসে। কিন্তু, কি এমন কারণে তিনি বিয়ে করেননি?

জানা যায়, অটল বিহারি বাজপেয়ীকে যদি কখনো প্রশ্ন করা হতো সংসার নিয়ে, জবাবে তিনি নাকি হেসে জানিয়ে দিতেন, ব্যস্ত থাকার কারণেই আর বিয়ে করা হয়নি।

যদিও তার ঘনিষ্ঠজনেদের মতে, রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে অতিরিক্তি মনযোগ দেয়ার কারণেই বিয়ে করার আর সময় সুযোগ হয়ে ওঠেনি অটল বিহারি বাজপেয়ীর। রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘের জন্য তিনি আজীবন অবিবাহিত থাকা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

ভারতীয় সাবেক সাংবাদিক এবং কংগ্রেস নেতা রাজীব শুক্লা এক সাক্ষাৎকারে সদ্যপ্রয়াত বাজপেয়ীকে বিয়ে প্রসঙ্গে প্রশ্ন করেন। উত্তরে তিনি বলেছিলেন, ‘এমন এমন ঘটনা ঘটতে থাকে যেগুলোর মধ্যে আমি জড়িয়ে যেতে থাকি আর তার মধ্যেই বিয়ের বয়স চলে যায়।’

একটা সময় রাজকুমারী কৌলের সঙ্গে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর সম্পর্কের গুঞ্জন উঠেছিল। ওই সাক্ষাতকারে বাজপেয়ীকে সেই প্রেম সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বিষয়টি নিয়ে খোলাখুলি কিছু বলেনননি। তবে কথার মাধ্যমেই একাকীত্বের বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে ওঠে। তিনি বলেছিলেন, ‘ভিড়ের মাঝে আমি একাকীত্ব অনুভব করি।’

শোনা যায়, চল্লিশের দশকে বাজপেয়ীর সঙ্গে রাজকুমারী কৌলের প্রেমের সূচনা। ওই সময় তিনি গোয়ালিয়রে একটি কলেজে পড়াশোনা করছিলেন।

তবে রাজকুমারী কৌল ও বাজপেয়ী তাদের সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে কখনো কিছু না বললেও এই দুটি নাম সবসময়ই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল। সব সময় নিজেদের ভালো বন্ধু বলেই পরিচয় দিতেন তারা।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৬, ১৯৯৮ ও ১৯৯৯ সালে তিনবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন অটল বিহারি বাজপেয়ি। প্রথম দফায় ১৩ দিন, দ্বিতীয় দফায় ১৩ মাস এবং তৃতীয় দফায় পূর্ণ সময়ের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ২০১৪ সালে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পরে বাজপেয়িকে ভারতরত্ন উপাধি দেওয়া হয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY