যুক্তরাষ্ট্রের পথে হাঁটছে ভারত

0
13

করোনা সংক্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের পথেই যেন হাঁটছে ভারত। ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ ৭৯ লাখের বেশি। অপরদিকে ভারতে এর মধ্যেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনে প্রথম করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। তবে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু দেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। আর এই তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা মোট ৭১ লাখ ২০ হাজার ৫৩৮। কোভিড সংক্রমণে এখন পর্যন্ত দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে মোট ১ লাখ ৯ হাজার ১৫০ জনের।

অপরদিকে সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৬১ লাখ ৪৯ হাজার ৫৩৫ জন। ভারতে বর্তমানে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৮ লাখ ৬১ হাজার ৮৫৩।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬৬ হাজার ৭৩২ জন। অপরদিকে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৮১৬ জনের। একই সময়ে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছে ৭১ হাজার ৫৫৯ জন।

অর্থাৎ দৈনিক সংক্রমণের তুলনায় সুস্থতার সংখ্যা প্রায় ৫ হাজার বেশি। দেশটিতে বর্তমানে সুস্থতার হার ৮৬ দশমিক ৩৬ শতাংশ। আর মৃত্যুহার ১.৫৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯ লাখ ৯৪ হাজার ৮৫১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

ভারতে কোভিড পরিসংখ্যানের শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এখন পর্যন্ত মহারাষ্ট্রেই করোনায় আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সংক্রমণে এর পরেই রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ এবং রাজধানী দিল্লি। এই ৬ রাজ্যেই অধিকাংশ সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে, আসন্ন শীতে করোনা সংক্রমণ বাড়তে পারে। এ বিষয়ে সতর্ক করে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হর্ষ বর্ধন বলেন, শীতকালে করোনা আরও বেশি মাত্রায় ছড়িয়ে পড়তে পারে। এমন সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, করোনা মূলত শ্বাস-প্রশ্বাস সম্পর্কিত একটি ভাইরাস, যা নিঃশ্বাসের সঙ্গেও সংক্রমণ ছড়াতে পারে। শীতকালে মানুষের শ্বাসকষ্ট, হাঁপানি বা এ সম্পর্কিত যে কোনও সমস্যাই বেড়ে যায়। তাই করোনায় সংক্রমণও বহুগুণ বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY