মুরসিকে ফেলে রেখে হত্যা করা হয়েছে!

0
207

মিসরের প্রথম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে দিন দিন উত্তপ্ত হচ্ছে মিসরের রাজনীতি। মুসরির মৃত্যুকে এরই মধ্যে হত্যা বলে দাবি করেছেন তাঁর স্বজন ও বন্ধুরা। তবে, স্বজনদের এ দাবি অস্বীকার করেছে মিসরীয় অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়।

সম্প্রতি এ নিয়ে একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টে। ওই প্রতিবেদনে গণমাধ্যমটি দাবি করছে মুরসি অসুস্থ হওয়ার পর তাঁকে ২০ মিনিট মাটিতেই ফেলে রাখা হয়। এ সময় তাঁকে সহোযোগিতা করতে কেউ এগিয়ে আসেননি। এ সময় নিরাপত্তাকর্মীরা ও দ্রুততার সহিত তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করেনি।

এ অভিযোগ অস্বীকার করে মিসরীয় অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় জানায়, মুরসিকে জলদি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে সেখানে তিনি মারা গেছেন।

মুরসি সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পড়ে যাওয়ার পর কারাকক্ষের খাঁচার চত্বরে ২০ মিনিটেরও বেশি সময় ৬৭ বছর বয়সী নেতাকে অবহেলায় ফেলে রেখেছিল কারাপ্রহরীরা।

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে মুরসির পাশে থাকা অপর মামলার আসামি হাদ্দাদ জানান, মুরসি পড়ে গেলে সাহায্যের জন্য কেউ এগিয়ে যায়নি। প্রহরীরা তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি মাটিতেই পড়ে ছিলেন। আধঘণ্টা পর একটা অ্যাম্বুলেন্স আসে। অন্যান্য বন্দিরা তাকে পড়ে যাওয়া অবস্থায় দেখলে চিৎকার করতে থাকেন।

হাদ্দাদ বলেন, তিনি পড়ে যাওয়ার পরে যে অবজ্ঞা করা হয়েছে, তা ছিল ইচ্ছাকৃত। আটক ব্যক্তিরা চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করলে কারাপ্রহরীরা প্রথমে যে কাজটি করেছে, পরিবার সদস্যদের কারাকক্ষের বাইরে নিয়ে গেছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY