নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়াদের পাশে দাড়ালেন মমতা

0
17
এবার আকাশে ‘বিমান বিপদে’ মমতা!
এবার আকাশে ‘বিমান বিপদে’ মমতা!

আসামের প্রকৃত নাগরিকদের নামের তালিকা (এনআরসি) প্রকাশ করা হয়েছে। ওই তালিকায় চূড়ান্তভাবে ঠাঁই হয়েছে ৩ কোটি ১১ লাখ লোকের। এই তালিকা থেকে বাদ পড়ছে ১৯ লাখের বেশি মানুষ।

আসামের এনআরসি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আলোচনা চলছিল। শনিবার (৩১ আগস্ট) সকাল ১০টায় অনলাইনে তালিকা প্রকাশ করা হয়। তালিকা প্রকাশের পর ১৯ লাখ ৬ হাজার মানুষের ভবিষ্যৎ অনিশ্চয়তায় পড়ে গেছে।

তবে এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস। এর বিরুদ্ধে আগামী ৭ ও ৮ সেপ্টেম্বর রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

এ ইস্যুতে সোমবার বিকেলে তৃণমূল নেত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাসভবনে দলীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, আসামের নাগরিক তালিকার বিরুদ্ধে রাজপথে নামবে তৃণমূল কংগ্রেস।

তৃণমূলের অভিযোগ ভারতে বিভাজনের রাজনীতি করছে কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপি। আসামের নাগরিক তালিকাও এই বিভাজনের রাজনীতিরই অংশ। এর বিরুদ্ধে আগামী ৭ ও ৮ সেপ্টেম্বর রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করবে তৃণমূল কংগ্রেস। ১২ সেপ্টেম্বর কলকাতার চিড়িয়া মোড় থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত প্রতিবাদ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হবে। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও এতে অংশ নিতে পারেন।

দলের একজন বলেন, দলীয় বৈঠকে আসামের নাগরিকপঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা থেকে যে ১৯ লাখ মানুষ বাদ পড়েছেন, তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি দলের নেতাদের নির্দেশ দিয়েছেন, মানুষের কাছে গিয়ে বিজেপির অশুভ দিক তুলে ধরতে। যেমন : তারা যদি ক্ষমতায় আসে তাহলে পশ্চিমবঙ্গেও এনআরসি করা হবে।

তিনি বলেন, এনআরসি নিয়ে উত্তর পূর্বের নেতাদের সাথে যোগাযোগ রাখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে দলের বর্ষীয়ান নেতা ফিরহাদ হাকিম এবং রাজ্যসভার সদস্য তথা উপনেতা সুখেন্দুশেখর রায়কে। এনআরসি নিয়ে দেশের অন্যান্য আঞ্চলিক দলগুলোর সাথে যোগাযোগ রাখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে লোকসভায় তৃণমূলের দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিমের অভিযোগ, আসাম থেকে বাঙালিদের তাড়াতে এনআরসিকে হাতিয়ার করা হয়েছে। তার প্রশ্ন, ‘সরকার কী করে এতটা হীনমন্য হতে পারে যে, একটা সকালে তারা নাগরিকত্ব তালিকা প্রকাশ করল এবং আসামের কয়েক দশকের বাসিন্দারা ঘরছাড়া হলেন?’

এ দিকে আসামের পর এবার পশ্চিমবঙ্গেও ‘বাংলাদেশী মুসলমানদের’ তাড়াতে নাগরিক তালিকা তৈরির হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ভাষায়, ভারতের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার স্বার্থে ‘বাংলাদেশী মুসলমানদের’ তাড়াতে পশ্চিমবঙ্গেও নাগরিকপঞ্জি করা হবে। তবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের মাধ্যমে হিন্দুদের স্বার্থ রক্ষায় সচেষ্ট থাকবে বিজেপি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY