তুরস্ক-ইসরাইল কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনর্স্থাপন

0
171
তুরস্ক ও ইসরাইল আবারও দ্বিপাক্ষিক কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে একমত পোষণ করেছে। ২০১০ সালের পর ফের দেশ দুটির মধ্যে এ সম্পর্ক তৈরি হচ্ছে। গতকাল উভয়  দেশের  কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য নতুন করে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করা হচ্ছে। খবর  রয়টার্সের

দুই দেশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা এ সপ্তাহে সুইজারল্যান্ডে একটি গোপন বৈঠকে মিলিত হয়। ২০১০ সালে ইসরাইলের হামলায় ১০ তুর্কি নাগরিক নিহত হওয়ার পরে দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত করা হয়। এ সম্পর্ক পুনর্স্থাপনের জন্যই দেশ দু’টির কর্মকর্তারা সুইজারল্যান্ডে বৈঠক করেছেন বলে এক ইসরাইলি কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

আইএস তুরস্ক ও ইসরাইল দুই দেশের জন্যই হুমকির কারণ। আইএসকে যৌথভাবে মোকাবেলার জন্যই আমেরিকার ঘনিষ্ঠ মিত্র দেশ দুইটি কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনরায় স্থাপন করতে যাচ্ছে।

এছাড়া, রাশিয়ার সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্ক ভেঙ্গে পড়ায় প্রাকৃতিক গ্যাস সংকটে ভুগছে তুরস্ক। তুরস্কের প্রধান গ্যাস সরবারহকারী দেশ রাশিয়া। ইসরাইল ও তুরস্ক একটি যৌথপাইপ লাইন নির্মাণে একমত হয়েছে এবং ইসরাইল তুরস্কে গ্যাস সরবারহ করতে সম্মত হয়েছে বলে বৈঠকে উপস্থিত তুর্কি কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

২০১০ সালের সংঘর্ষের পর ইসরাইলকে শত্রু রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করে তুরস্কের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রিসেপ তাইপ এরদোগান।

২০১৩ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আহ্বানে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু এরদোগানকে ফোন করলেও তাদের মধ্যকার সম্পর্কের বরফ গলেনি।

এ সপ্তাহের শুরুতে এরদোগান বলেছেন, তুরস্ক-ইসরাইলের উষ্ণ সম্পর্ক এ অঞ্চলের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয়।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY