গোপনাঙ্গে করে মাদক পাচার চেষ্টায় মহিলা আটক

0
4

এক নাইজেরিয়ান মহিলাকে নিষিদ্ধ মাদকসহ গ্রেফতার করা হয়েছে । তার কাছ থেকে ২০টি এলএসডি-সহ ১২ গ্রাম কোকেন উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া এলএসডি ব্যাগে মিললেও কোকেন পাওয়া গিয়েছে মহিলার গোপনাঙ্গে।

আটক হওয়া মহিলার নাম ডেভিড ব্লেসিং (৩০)। সোমবার (৯ জুলাই) রাত ৯টা ২০ মিনিটে বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করেন ভারতের নারকোটিক কন্ট্রোল ব্যুরোর কর্মকর্তারা। রাতেই তাকে বিমানবন্দরের এনএসসিবিআই থানায় নিয়ে আসা হয়।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানায়, নাইজেরিয়ান মহিলার শরীরে আরও অনেক নিষিদ্ধ মাদক রয়েছে। তবে সে নিজেও তা বের করতে পারছে না। জেরায় এ কথা স্বীকার করে নিয়েছে ডেভিড ব্লেসিং। এরপরই গোয়েন্দাদের তরফে মাদক পাচারকারীকে বিমানমন্দর লাগোয়া চার্ণক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পাচারকারীর তলপেটে এক্স-রে করার পরই বেরিয়ে পড়ে আসল তথ্য।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ডেভিড ব্লেসিংয়ের জরায়ুতে (ইউটেরাস) রয়েছে নিষিদ্ধ মাদক। এমনকী, তার যোনিতেও মাদক থাকতে পারে বলে অনুমান। আপাতত ওই সুপারস্পেশ্যালিটি হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছে নাইজেরিয় মহিলা। খুব শিগগিরিই তার গোপনাঙ্গের আলট্রা সোনোগ্রাফি করা হবে। তাহলেই জানা যাবে যোনিতে ঠিক কতটা মাদক লুকিয়ে রাখা হয়েছে।

পরবর্তী মেডিক্যাল পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণের জন্য চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে নাইজেরিয় পাচারকারী। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেই তাকে ফের জেরা করবেন গোয়েন্দারা। কোথা থেকে মাদক নিয়ে কোথায় যাচ্ছিল ওই যুবতী, তা জানার চেষ্টা করা হবে। একই সঙ্গে এই পাচারচক্রের শহরের কেউ জড়িত আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY