গির্জা মসজিদ সিনেগগ খুলে দেয়ার আহবান করোনা থেকে বাঁচতে ধর্মীয় উপাসনায়ও গুরুত্ব ট্রাম্পের

0
11

করোনা ভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পেতে ধর্মীয় উপাসনাকেও গুরুত্ব দিচ্ছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। আর তাই আমেরিকাজুড়ে সকল গির্জা, মসজিদ ও সিনেগগ খুলে দেয়ার জন্য স্টেটগুলোর গভর্ণরদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তিনি। শুক্রবার বিকালে হোয়াউট হাউসের ব্রিফিংরুমে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের মাধ্যমে এ আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, যদি গভর্ণররা আমার এ আহবানে সাড়া না দেয় তাহলে আমি ভিন্নপথে হাঁটবো। প্রেসিডেন্ট বলেন, এই সময় আমাদের বেশি বেশি প্রার্থণা করা দরকার। কিন্তু ধর্মীয় উপানালয়গুলো বন্ধ রেখে আমরা সেই সুযোগ থেকে সব ধর্মের মানুষকেই বঞ্চিত করছি।
প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব অস্বাভাবিক দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে গত মার্চ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই আমেরিকায় ধর্মীয় উপাসনালয়গুলো ধীরে ধীরে বন্ধ হতে শুরু করে। তৃতীয় সপ্তাহের মধ্যেই বন্ধ হয়ে যায় প্রায় সকল গির্জা, মসজিদ, মন্দির ও ইহুদিদের ধর্মীয় উপাসনালয় সিনেগগ। কিন্তু করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে যে বিধি-নিষেধ কার্যকর রয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরেই সেটার সমালোচনা করে আসছেন। তিনি অবিলম্বে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড পুরোদমে চালু করাসহ জনজীবন স্বাভাবিক করতে চান।

কিন্তু জনজীবনের এসব বিধিনিষেধ বা লকডাউন বিভিন্ন স্টেটের গভর্ণর কর্তৃক আরোপিত ও বাস্তবায়িত হওয়ার কারণে প্রেসিডেন্ট বা ফেডারেল সরকারের এ ক্ষেত্রে সরাসরি কিছু করার থাকে না। এ অবস্থায় প্রেসিডেন্ট বেশ কিছুদিন ধরেই লকডাউন তুলে দেয়ার জন্য নরমে-গরমে গভর্ণরদের প্রতি আহবান জানাতে থাকেন। তাঁর আহবানে সাড়া দিয়ে প্রধানত রিপাবলিকান দলীয় গভর্ণররা নিজনিজ স্টেটে লকডাউন আংশিকভাবে তুলে নেন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট চান সকল বিধি-নিষেধ পুরোপুরি তুলে নেয়া হোক। শুক্রবার তিনি সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য হোয়াইট হাউজের ব্রিফিংরুমে এসেই ধর্মীয় উপাসনালয়গুলো খুলে দেয়ার আহবান জানিয়ে কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন, চলতি উইকেন্ডের মধ্যেই এগুলো খুলে দিতে হবে। কিন্তু ঠিক কি কারণে তিনি এতটা তাড়াহুড়া করে ধর্মীয় উপাসনালয়গুলো খুলে দেয়ার কথা বলছেন সে ব্যাপারে কোনো ব্যাখ্যা দেননি প্রেসিডেন্ট। সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্নের সুযোগ না দিয়েই এদিন তিনি ব্রিফিংরুম ত্যাগ করেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY