আকাশ প্রতিরক্ষায় শক্তি দেখালো ইরান

0
20

সামরিক বাহিনীর যুদ্ধ-সক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্যে নিজেদের তৈরি ক্ষেপণাস্ত্র, রাডার, বোমারু বিমান ও ড্রোন নিয়ে ইরানে সশস্ত্র বাহিনীর বিশাল বিমান প্রতিরক্ষা মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশের অর্ধেকের বেশি এলাকা নিয়ে এই মহড়া চলে। ‘গার্ডিয়ান্স অফ বেলায়াত স্কাই-৯৯’ নামের এ মহড়ায় ইরানের সেনাবাহিনীর বিমান প্রতিরক্ষা ইউনিটগুলোর পাশাপাশি ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) অ্যারোস্পেস ফোর্স অংশ নেয়।

ইরানের বিমান প্রতিরক্ষা ঘাঁটি খাতামুল আম্বিয়ার নিবিড় তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হয় এ মহড়া।

মহড়ায় দেশে তৈরি নানা ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র, রাডার, গোয়েন্দা ও ইলেক্ট্রনিক ওয়ারফেয়ার সরঞ্জামাদি ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর যৌথ আকাশ-প্রতিরক্ষা মহড়ার মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্বাস।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের ইন্টারসেপ্টর ফাইটার এয়ারক্রাফ্ট, বোমারু বিমান ও ড্রোন মহড়ায় অংশ নেয়। এ মহড়ার কোড ছিল ‘ইয়া রাসুলুল্লাহ’। রবিউল আউয়াল মাসে এই মহড়ার আয়োজন করা হয়।

jagonews24

ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার আগে সব দেখে নিচ্ছেন ইরানের এক সেনা সদস্য।

jagonews24

নিজেদের সামর্থ্যের জানান দিতে আকাশের দিকে ছোড়া হলো ক্ষেপণাস্ত্র।

jagonews24

ইরানের প্রায় অর্ধেকের বেশি এলাকায় এই মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

jagonews24

মহড়ায় অংশ নেয় সেনাবাহিনীর আকাশ প্রতিরক্ষার বিভিন্ন ইউনিট ও ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর অ্যারোস্পেস ফোর্স।

jagonews24

একসঙ্গে আকাশে নিক্ষিপ্ত হওয়ার আগ মুহূর্তে তিন ক্ষেপণাস্ত্র।

jagonews24

কাছ থেকে কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করছেন দুই সেনা সদস্য।

jagonews24

ক্ষিপ্রগতিতে ছুটছে ক্ষেপণাস্ত্র।

jagonews24

আকাশে ছুটছে অত্যাধুনিক যুদ্ধাস্ত্র।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY