‘স্মিথ-ওয়ার্নার খুন করে পার পেয়ে গেল!’

0
12

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার ১ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে বিপিএলের মাধ্যমে ফের ফিরেছেন ক্রিকেটে। এখন খেলছেন আইপিএলে। আসন্ন বিশ্বকাপে যে দুজনেই জাতীয় দলে ফিরবেন তাতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু তাদের এই শাস্তি কম হয়ে গেছে বলে মনে করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার কার্টলি অ্যামব্রোস। উইন্ডিজের সোনালী যুগের এই ভয়ংকর পেসার মনে করেন, এই অপরাধে কমপক্ষে দুই বছরের সাজা হওয়া উচিত ছিল তাদের।

গত বছরের মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে গিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার স্মিথ-ওয়ার্নারের নাম। শাস্তি হিসেবে তাদের এক বছর নির্বাসিত করেছিল অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ড। তাদের শাস্তি নিয়ে ৫৫ বছর বয়সী অ্যামব্রোস বলেন, ‘এমন অপরাধ নিয়ম ভাঙলে শাস্তি পেতেই হবে। আমি তো মনে হচ্ছে যেন ওরা খুন করে পার পেয়ে গেল। এক বছরের শাস্তি কিছুটা কম হয়ে গেছে। আমি তো বলব, দুই বছর নির্বাসিত করে এমন বোকামির জন্য একটা বার্তা দেওয়া উচিত ছিল।’

টেস্ট ক্রিকেটে চার শতাধিক উইকেট শিকারি ১৫ বোলারের অন্যতম অ্যামব্রোজ আরও বলেন, ‘আমার বিশ্বাস ওরা এমন কাজ আর কখনও করবে না। আশা করি অস্ট্রেলিয়া এখন ওদের পাশে দাঁড়াবে এবং ওরা বিশ্বকাপের দলে জায়গা করে নেবে। কারণ ওরা দলে এলে অস্ট্রেলিয়া আরও শক্তিশালী হবে।’

স্মিথ এবং ওয়ার্নারের নির্দেশে মাঠে এই টেম্পারিং করেছিলেন দলে জায়গা পাকা করার সংগ্রামে থাকা ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট। যে কারণে তার ৯ মাসের নির্বাসনের শাস্তি হয়েছিল। দুই অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার যখন বল বিকৃতির জন্য এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে কড়া শাস্তি কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ঠিক তখনই অ্যামব্রোজের এই মন্তব্যে হইচই পড়ে গেছে। তবে এটা স্মিথ-ওয়ার্নারের বিশ্বকাপ খেলায় কোনো প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন না বিশেষজ্ঞরা

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY