ম্যাচ চলাকালীন কোচের উপর মেজাজ দেখান কোহলি! (ভিডিও)

0
73

বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেছে ভারত। টুর্নামেন্টের শুরু হওয়ার আগে জয়ের প্রবল দাবিদার মানা ভারতীয় দল গ্রুপ ম্যাচে চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলে। কিন্তু সেমিফাইনালে তাদের হারের মুখে পড়তে হয়। নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হেরে সেমিতে থেকে বিদায় নিতে হয় বিরাট কোহলির দলকে।

ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১২তম আসরে ভারতের লজ্জার হারের এই দিনে কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে অধিনায়ক বিরাট কোহলির আচরণ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। যা নিয়ে চলছে তুমুল সমালোচনা।

ভিডিওতে দেখা গেছে, মিশেল স্যান্টনারের বলে মিড উইকেটের উপর দিয়ে হঠাৎই ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে কলিন গ্র্যান্ডহোমের হাতে ধরা পড়েন ঋষভ পন্থ। তাকে এভাবে আউট হতে দেখে ড্রেসিংরুমে বসেই রাগে লাফিয়ে ওঠেন অধিনায়ক কোহলি! এতটাই ক্ষিপ্ত হয়েছিলেন যে, কোহলি ড্রেসিং রুম থেকে রাগে ব্যালকনিতে বেরিয়ে আসেন। সেখানে দলের কোচ রবি শাস্ত্রী বসে ছিলেন। এসময় তার উপরই মেজাজ দেখাতে দেখা যায় ভারতীয় অধিনায়ককে।

নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়া সেই ভিডিওটি দেখে অবশ্য বোঝা যাচ্ছে না, কোচকে কি বলছেন কোহলি। তবে তাকে যথেষ্ট রাগান্বিত দেখিয়েছে। অন্যদিকে শাস্ত্রীকে নিশ্চুপই থাকতে দেখা গেছে।

বুধবারের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে ভারত। প্রথম ১০ ওভারে এবারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে কম রানের লজ্জার রেকর্ডটিও গড়ে ভারত। প্রথম ১০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৪ রান তোলে টিম ইন্ডিয়া। ম্যাচের ভাগ্য মূলত তখনই লেখা হয়ে যায়। তবু ঋষভ পন্থ, হার্দিক পাণ্ডিয়া আর শেষ দিকে জাদেজা-ধোনির জুটি চেষ্টা করেন। লড়াই করেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি।

ম্যাচে তখন টান টান উত্তেজনা ব্যাট হাতে লড়াই চালাচ্ছেন ধোনি ও জাদেজা। ৮৪ বলে ভারতের প্রয়োজন ১১৭ রান। এসময় টিভি ক্যামেরায় রোহিত শর্মাও ধরা পড়েন বিমর্ষ চেহারায়।

টুপি খুলে মাথায় হাত দিয়ে ড্রেসিংরুমে কোনো রকমে শরীরটা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। মন ছাইছে না তবুও দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। আর রোহিতের চোখের কোনে অশ্রু। গোটা বিশ্বকাপে এত রান করেও শেষ চারের ম্যাচে রান না করতে পারার যন্ত্রনা হয়তো তখন তাকে কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে। আর এই ছবিটাই রীতিমতো ভাইরাল হয়ে পড়ে। এমনকি এটা নিয়ে টিকটক ভিডিও তৈরি হয়ে যায়।

গোটা বিশ্বকাপে ৬৪৮ রান করা রোহিত শর্মা যে কথাটা প্রতি ম্যাচের পরে বলতেন, যে অতীত কেউ মনে রাখে না। কিংবা বিশ্বকাপ না জিতলে এই সব রেকর্ডের কোনো মূল্য থাকবে না। কথাগুলো যে কতটা সত্যি, ভারতের বিদায়ের পর তা আসলেই অনুমেয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY