মেসির সঙ্গে আর কে কে মাতাবেন এবারের লা লিগা?

0
17

আজ (শনিবার) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় এইবার ও সেল্টা ভিগোর মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে ২০২০-২১ মৌসুমের স্প্যানিশ লা লিগা। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এবারও গ্যালারিতে থাকছে না দর্শক উপস্থিতি। এছাড়া আর্থিক দিক থেকেও খুব একটা ভালো অবস্থানে না থাকায়, হয়নি বড় কোনো দলবদল।

অনেক অনিশ্চয়তা ও প্রশ্ন নিয়ে শুরু হতে যাওয়া লা লিগায় এবার শিরোপার জন্য ফেবারিট রিয়াল মাদ্রিদ। লিওনেল মেসিকে ধরে রেখে নিজেদের দল পুনর্গঠনের দিকে মনোযোগী বার্সেলোনা। এছাড়া ওপরের দিকে থাকার লড়াইয়ে রয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, সেভিয়া এবং ভিয়ারিয়ালের মতো দলগুলো।

এছাড়াও এবারের লা লিগায় রয়েছে ডেভিড সিলভার স্পেনে ফেরা, পিটার লিমের বিতর্কিতভাবে ভ্যালেন্সিয়াকে সাজানো এবং ১৪ বছর পর কাদিজের লিগে ফেরার ঘটনাও। এবারের লা লিগায় আলোচ্য বিষয় বা নাম হতে পারে এমন ১০টি নামের তালিকা করেছে স্পেনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মার্কা। জাগো নিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো সেটি:

লিওনেল মেসি
কখনও যদি বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লা লিগা ছেড়ে যান, তাহলে টুর্নামেন্টের অবস্থা আর একইরকম থাকবে না। তবে লিগের জন্য সুখবর যে, এই দিনটি আরও এক বছর পিছিয়ে গেছে। এবারের মৌসুম পুরোটাই বার্সেলোনায় থাকবেন মেসি। নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের অধীনে যে পুনর্গঠনের চিন্তা করছে বার্সা, সেখানেও নিশ্চিতভাবে বড় ভূমিকা থাকবে মেসির। আর যদি এটিই লা লিগায় তার শেষ মৌসুম হয়ে থাকে, তবে তিনিও চাইবেন সাফল্য দিয়ে এটিকে রাঙিয়ে রাখতে।

সার্জিও রামোস
রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে টানা ১৫তম মৌসুমে খেলার অপেক্ষায় রয়েছেন সার্জিও রামোস। তার অধীনে ২০১৯-২০ মৌসুমের লা লিগা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। টানা দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপার জন্য ছুটবেন তিনি। বর্তমানে রামোসের বয়স ৩৪ হয়ে গেলেও, একের পর এক রেকর্ড গড়েই চলেছেন তিনি।

ডিয়েগো সিমিওনে
অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ম্যানেজার হিসেবে টানা দশম মৌসুমে রয়েছে সাবেক আর্জেন্টাইন ডিয়েগো সিমিওনে। এরই মধ্যে তিনি পেয়েছেন লা লিগা শিরোপার স্বাদ। নতুন মৌসুমে আরও একবার শিরোপার লক্ষ্যে এগুতে চান সিমিওনে। তার দলের খেলোয়াড় সাউল নিগেজ বলেছেন, ‘রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো দল রয়েছে আমাদের।’

মনচি
হুলেন লোপেতেগুইয়ের অধীনের সেভিয়ার সাম্প্রতিক সাফল্যে বড় অবদান রয়েছে ক্লাবটির স্পোর্টিং ডিরেক্টর মনচির। গত মৌসুমে হুলেস কৌনদে, ডিয়েগো কার্লোস এবং লুকাস ওকাম্পোসের মতো কার্যকরী খেলোয়াড়দের দলে এনেছেন তিনি। চলতি বছর ইভান রাকিটিচ এবং ওস্কার রদ্রিগেজদের মতো খেলোয়াড়রা যোগ দেয়ায় এবার শিরোপা স্বপ্নও দেখতে পারে সেভিয়া।

উনাই এমেরি
ফ্রেঞ্চ ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেই ও আর্সেনালের হয়ে দায়িত্ব পালনের পর লা লিগায় ফিরেছেন কোচ উনাই এমেরি। এবার তিনি কোচ হিসেবে থাকছেন ভিয়ারিয়ালের ডাগআউটে। অভিজ্ঞতা ও তারুণ্যের মিশেল ঘটাতে এরই মধ্যে দানি পারেজো, ফ্রান্সিস ককলিন এবং তাকে কুবোর মতো খেলোয়াড়দের কিনেছেন এমেরি।

ডেভিড সিলভা
এবারের মৌসুমে লা লিগার সেরা দলবদল নিঃসন্দেহে ডেভিড সিলভার আগমন। ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে ১০ বছর খেলার পর এবার রিয়াল সোসিয়েদাদে এসেছেন ডেভিড সিলভা। এর আগে ভ্যালেন্সিয়ার হয়ে আলো ছড়ানো সিলভা এবার রিয়াল সোসিয়েদাদের জার্সি মাতানোর অপেক্ষায়।

পিটার লিম
মৌসুম শুরুর আগেই বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে বিক্রি করে দিয়েছেন ভ্যালেন্সিয়ার বিতর্কিত মালিক পিটার লিম। ক্লাবের আর্থিক দৈন্যদশা কাটাতে দানি পারেজো, ফ্রান্সিস ককলিন, রদ্রিগো মরেনো এবং ফেরান টরেসকে বিক্রি করে দিয়েছেন লিম। তার এসব কর্মকাণ্ড মোটেও ভালোভাবে নেয়নি ভ্যালেন্সিয়ার সমর্থকরা।

মার্টিন ওডেগার্ড
জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদের এবারের মৌসুমে একমাত্র নতুন মুখ মার্টিন ওডেগার্ড। রিয়ালের গ্যালাকটিকোদের মতো করেই খেলতে হবে ওডেগার্ডকে। গত মৌসুমে রিয়াল সোসিয়েদাদে খেলা এ নরওয়েজিয়ানকে নিয়ে মাতামাতি হয়েছে বিস্তর। রিয়াল থেকে লোনে খেলেছিলেন সোসিয়েদাদে। এবারের মৌসুমের জন্য তাকে ফিরিয়ে এনেছেন জিদান।

আনসু ফাতি
এরই মধ্যে বার্সেলোনার হয়ে এক মৌসুম খেলে ফেলেছেন ১৭ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড আনসু ফাতি। ক্লাব ফুটবল থেকে শুরু করে আন্তর্জাতিক মঞ্চ পর্যন্ত নানান রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন তিনি। লা লিগায় বার্সেলোনার সর্বকনিষ্ঠ গোলস্কোরার, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সর্বকনিষ্ঠ গোলস্কোরার এবং স্পেনের ইতিহাসেরও সর্বকনিষ্ঠ গোলস্কোরার তিনি। নতুন মৌসুমে বার্সার সাফল্যের উল্লেখযোগ্য অংশ নির্ভর করবে তার পারফরম্যান্সের ওপর।

কাদিজ
সবশেষ ২০০৬ সালে লা লিগায় খেলেছিল কাদিজ। এবার ১৪ বছর পর আবার তারা ফিরেছে স্পেনের সর্বোচ্চ ঘরোয়া টুর্নামেন্টে। আন্দালুসিয়ান এ ক্লাবটি স্পেনের বর্ণিল দলগুলোর মধ্যে একটি। সমর্থকদের মধ্যে তাদের লা লিগায় ফেরা নিয়ে উন্মাদনার কমতি নেই।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY