বাংলাদেশ দলের পরামর্শক হয়ে ঢাকায় গ্যারি কারস্টেন

0
28

ভারতের বিশ্বকাপজয়ী কোচ তিনি। ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার কোচও। গ্যারি কারস্টেনকে বাংলাদেশও চেয়েছিল কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতে। তবে তিনি বাংলাদেশের কোচ হিসেবে কাজ করতে আগ্রহী নন। তবে স্বল্পমেয়াদে কাজের আগ্রহ দেখান। এদিকে বাংলাদেশ দল জাতীয় ক্রিকেট দল কোচহীন দীর্ঘদিন। তাই বিসিবি তাকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেন। নতুন একজন কোচ খুঁজে পেতে তাই কারস্টেনেরই স্মরণাপন্ন হয়েছে বিসিসি।

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরামর্শক হয়ে ঢাকায় এসে পৌঁছে গেলেন গ্যারি কারস্টেন।

এবারের আইপিএলে গ্যারি কারস্টেনের দল রয়্যাল চালেঞ্জার্স বাঙ্গালোর শেষ চারে উঠতে পারেনি। আইপিএলে কারস্টেনের কাজও শেষ। এবার তিনি বাংলাদেশ দলের জন্য নতুন কোচ নিয়োগের ব্যাপারে বিসিবিকে সহায়তা করতে পারবেন।

রবিবার (২০ মে) রাতে ভারত থেকে ঢাকায় এসেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ব্যাটসম্যান।

গত সোমবার হোটেল সোনারগাঁওয়ে গর্ডন গ্রিনিজের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়েছিলেন, আইপিএলে গ্যারি কারস্টেনের দল বাঙ্গালোর শেষ চারে না উঠলে ২০-২১ মে ঢাকায় আসবেন তিনি।

বিসিবির অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান কাল বিকেলে বলেন, ‘কারস্টেনের আজ (রবিবার) রাতে ঢাকায় আসার কথা। ক’দিন থাকবে এ মুহূর্তে বলতে পারছি না। তার সঙ্গে কথা হলে বুঝতে পারব।’

পরে বিসিবি সূত্র নিশ্চিত করে, কারস্টেন রাত ৯টার দিকে ঢাকায় পৌঁছেছেন।

নাজমুল হাসান জানিয়েছিলেন, বিসিবি জাতীয় দলের জন্য তিনজন কোচের তালিকা তৈরি করে রেখেছে। কারস্টেনের কাছেও কয়েকজনের নাম রয়েছে। এখন বাংলাদেশের চাহিদা অনুযায়ী সবদিকে বিবেচনা করে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের উত্তরসূরি হিসেবে একজনের নাম প্রস্তাব করবেন কারস্টেন। তাকেই কোচ হিসেবে নিয়োগ দেবে বিসিবি।

বোর্ডের একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, বিসিবির পছন্দের তালিকায় যাদের নাম রয়েছে তারা সবাই দক্ষিণ আফ্রিকান। কারস্টেনের কাছে থাকা তালিকাতেও স্বদেশির সংখ্যা বেশি। তাহলে বাংলাদেশের পরবর্তী কোচ কী কোনো প্রোটিয়া?

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY