পাঁচজনই বোল্ড, কারণ জানাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

0
9

ওয়েস্ট ইন্ডিজের এমন পরিস্থিতি হওয়ার কারণ খুঁজতে অনেকে অনেক কথা বলেছেন। পাঁচ উইকেট হারানো তাও আবার বোল্ডের মাধ্যমে। এমন পরিস্থিতি আসলেই প্রশ্ন জাগে যে এমন পরিণতি কি ভাবে হলো। ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিনিধি ‘আসা জোমেল ওয়ারিকান’কারণের কথা জানালেন।

দ্বিতীয় দিন শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিনিধি হয়ে আসা জোমেল ওয়ারিকান জানালেন কারণ, ‘আমার মনে হয় ছেলেরা অনেক বেশি টার্নের আশায় খেলেছে, কিন্তু সেগুলো (বল) সোজাসুজি এসেছে এবং এতেই গুরুত্বপূর্ণ উইকেটগুলো হারিয়েছি। যে ব্যাটসম্যানরা এখনও নামতে বাকি তাদের শুধু নিজেদের কৌশল প্রয়োগ করতে হবে এবং সকালে দারুণ শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ভাল সংগ্রহ এনে দিতে হবে।’

ঢাকা টেস্টে যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাকফুটে সেটা স্বীকার করেছেন তিনি। তবে আগামীকাল ঘুরে দাঁড়াতে চান তারা, ‘দীর্ঘ সময় ফিল্ডিং করে দল হিসেবে আমরা যেখানে থাকতে চেয়েছি এটা অবশ্যই আদর্শ অবস্থান নয়। ভাল একটি অবস্থানে থাকতে চেয়েও অল্প রানে বাংলাদেশকে গুটিয়ে দিতে পারিনি। দল হিসেবে আমরা কিছুটা হতাশ। কিন্তু আগামীকাল আমাদের ফিরে আসতে হবে এবং ঘুরে দাঁড়াতে হবে।’

প্রথম দিন উইকেটে খুব একটা টার্ন পাওয়া না গেলেও দ্বিতীয় দিন থেকে কিছুটা স্পিন ধরছে। টার্ন পাওয়া যাচ্ছে। উইকেটের পরিবর্তনের বিষয়ে ওয়ারিকান বলেন, ‘অবশ্যই দ্বিতীয় দিনের শেষভাগে এসে উইকেটে পরিবর্তন হয়েছে। বাংলাদেশ যখন ব্যাট করেছে সেটি ছিল প্রথম দিনের কিছুটা ভাল উইকেট। তাছাড়া আমরা নিজেরাও ভাল খেলিনি এবং যথেষ্ট ভাল ব্যাট করতে পারিনি।’

বাংলাদেশের করা ৫০৮ রানের জবাবে ৫ উইকেট হারিয়ে ৭৫ রান তুলে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে ক্যারিবিয়ানরা। ফলোঅন এড়াতে এখনো তাদের তিন শতাধিক রান প্রয়োজন। তাই প্রশ্ন উঠেছে এই টেস্টটি চতুর্থ দিনে গড়াবে কিনা সেটা নিয়ে। ওয়ারিকান বলেন, ‘এই টেস্টকে চতুর্থ দিনে নিয়ে যাওয়াটা আমাদের পরিকল্পনা। আমরা আগামীকাল নামব ভাল ব্যাট করার উদ্দেশ্যে। আশা করছি হেটমায়ার ও ডোরিচ বড় স্কোর পাবে। কারণ, তাদের ব্যাটিংয়ে বেশ স্বচ্ছন্দ্য দেখা যাচ্ছে এবং তারা এটাকে চতুর্থ দিনে টেনে নিতে পারবেন।’

চট্টগ্রাম টেস্টের মতো ঢাকা টেস্টেও বাংলাদেশের টেলএন্ডাররা ভুগিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের। ৫ উইকেট হারিয়ে ২৫৯ রান তোলা বাংলাদেশ আজ বাকি পাঁচটি উইকেট হারিয়ে ২৪৯ রান তুলেছে। বাংলাদেশের টেলএন্ডারদের উইকেট তুলে নিতে যে তাদের কষ্ট হচ্ছে সেটা স্বীকার করেছেন ওয়ারিকান, ‘আমার মনে হচ্ছে উভয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের টেলএন্ডারদের উইকেট দ্রুত তুলে নিতে আমাদের বেশ কষ্ট হয়েছে। আর এটাই আমাদের কাছে ভীতিকর হয়ে এসেছে। তাই আমি আপনার সঙ্গে একমত। কিন্তু প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে টেলএন্ডারদের কাছ থেকে আমরা দ্রুত পরিত্রাণ পেয়েছি।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY