নামটাকে তো একটু সম্মান করুন : গেইল

0
12
ম্যাচ ও সিরিজ-সেরা হয়েও হতাশ গেইল!
ম্যাচ ও সিরিজ-সেরা হয়েও হতাশ গেইল!

ক্রিস গেইলের আগের দিন আর নেই। বয়সটা ৪১ পেরিয়েছে। আইপিএল নিলামে তাই তাকে নিয়ে আর কাড়াকাড়ি হয় না। এমনকি টি-টোয়েন্টির রাজা বলা হয় যাকে, সেই ব্যাটসম্যানকে কেনার পরও ম্যাচের পর ম্যাচ সাইডলাইনে বসিয়ে রাখতে ভাবে না দল।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবই যেমন এবার নিজেদের প্রথম সাত ম্যাচে গেইলকে ছাড়াই মাঠে নেমেছিল। এই সাত ম্যাচের মধ্যে তারা জিতেছে মাত্র একটি। হারতে হারতে কোণঠাসা হয়ে পড়া দলটির অবশেষে গেইলের কথা মনে হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে একাদশে জায়গা পান ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব।

আর সুযোগ পেয়েই সেটা লুফে নেন গেইল। পাঞ্জাবের শ্বাসরুদ্ধকর জয়ের ম্যাচে দুর্দান্ত এক ফিফটি উপহার দেন ‘ইউনিভার্স বস’। আর ফিফটির পর নিজের ব্যাটের ‘বস’ লেখাটি দেখান সবাইকে। জবাব আর কী!

শেষ ওভারে জেতা ম্যাচে পাঞ্জাবের হয়ে ৪৫ বলে ৫৩ রান করেন গেইল। ইনিংসটা নিজের স্টাইলে না হলেও দেখেশুনে খেলার মাঝেও ৫টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন তিনি। দলের জয়ে রেখেছেন বড় অবদান। গেইল জানালেন, শারজার উইকেটটা এই ম্যাচে ব্যাটিংয়ের জন্য অতটা সহজ ছিল না।

ক্যারিবীয় ওপেনার দলের হয়ে নেমেছিলেন তিন নম্বরে। ওপেনিং ছেড়ে নিচে ব্যাটিংয়ে নামার কারণ জানাতে গিয়ে গেইল বলেন, ‘উইকেট বেশ চটচটে, ধীরগতির ছিল। তবে দ্বিতীয় ভাগে ব্যাটিংটা ভালো হয়েছে। দল আমাকে তিন নম্বরে নামতে বলেছিল, এটা কোনো ব্যাপার নয়। পুরো টুর্নামেন্টজুড়েই (পাঞ্জাবের) ওপেনাররা ভালো করেছে, আমরা এটা বদলাতে চাইনি। যেমনটা বললাম, আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল এবং আমি সেটা পালন করেছি।’

দায়িত্ব তো পালন করেছেন দলের চাহিদা মেনেই। কিন্তু ফিফটির পর ব্যাট উঁচিয়ে ‘বস’ লেখাটা কেন দেখালেন? এবার কিছুটা আক্ষেপ ঠিকই ঝরে পড়ল গেইলের কন্ঠে। ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব বলেন, ‘আমি শুধু বলব, নামটাকে তো একটু সম্মান করুন! এটুকু করলেই চলবে।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY