গ্যারি কারস্টেনের পরামর্শে মাশরাফি-সাকিবদের নতুন কোচ

0
8

বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচের পদ থেকে গত বছর নভেম্বরে চন্ডিকা হাথুরুসিংহে পদত্যাগ করেছেন। সেই হাথুরুসিংহে শ্রীলঙ্কা দলের কোচ হয়ে ঘুরে গিয়েছেন বাংলাদেশ। অথচ বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের জায়গাটা এখনো ফাঁকা রয়ে গেছে।

বাংলাদেশের ক্রিকেটে এখন তাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন, মাশরাফি-সাকিবদের পরবর্তী কোচ কে হচ্ছেন। এবং নতুন কোচ কবে থেকে দায়িত্ব নিবেন মাশরাফি, তামিম, মুশফিক ও সাকিবদের? সামনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে কোচ পাওয়া যাবে কি না তাও নিশ্চিত নয়।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন অবশ্য এ বিষয়ে জানিয়েছেন, পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া গ্যারি কারস্টেনই ঠিক করবেন বিসিবির প্রধান কোচ। এ নিয়ে গ্যারি কারস্টেন কাজও শুরু করেছেন বলেন জানান তিনি।

নাজমুল হাসান বলেন, ‘সে (গ্যারি কারস্টেন) একটা পর্যবেক্ষণ করছে। বাংলাদেশের কোচ কি ধরনের হলে ভালো হয়। খেলোয়াড়দের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন এমনকি কোচিং স্টাফদের ও আমার সঙ্গেও তার কথা হয়েছে। এরপর সে তার প্রস্তাব দেবে। তার কাছে কিছু লিস্ট রয়েছে। আমাদের লিস্টটা নিয়ে এবং তার লিস্টটা মিলিয়ে আমাদের কাছে একটি প্রেজেন্টশন দেবে। তারপরও আমরা ফাইনাল করবো। আমাদের জন্য সেটা সুবিধা হবে।’

ভারতের বিশ্বকাপজয়ী গ্যারি কারস্টেনকে শুরু থেকেই প্রধান কোচ হিসেবে চেয়েছিল বিসিবি। কিন্তু সাবেক এই দক্ষিণ আফ্রিকান আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন পূর্ণকালীন কিছুতে তিনি যুক্ত হবেন না। বিসিবি সে সময় তাকে খণ্ডকালীন পরামর্শক হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল।

এমন প্রস্তাবে কারস্টেন রাজি হন, গর্ডন গ্রিনিজের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নিশ্চিত করেছেন, শিগগির বাংলাদেশে আসছেন কারস্টেন।

বিসিবি সভাপতি গ্যারি কারস্টেন আসার সময় নিয়ে বলেন, ‘এখন নির্ভর করছে আইপিএলের কি হয়। এখন যে অবস্থা তাতে ২০ মে থেকে ২২ মে এরমধ্যে চলে আসার কথা। তবে, এখান থেকে যদি কিছু ওলটপালট হয় তাহলে হয়তো দু’একদিন পেছাতে পারে। তার ঢাকায় আসার পরই কোচের বিষয়ে চূড়ান্ত কিছু জানাতে পারবো।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY