দরবৃদ্ধির শীর্ষ তালিকায় অর্ধেকই ব্যাংক

0
26
দরবৃদ্ধির শীর্ষ তালিকায় অর্ধেকই ব্যাংক
দরবৃদ্ধির শীর্ষ তালিকায় অর্ধেকই ব্যাংক

ঊর্ধ্বমুখিতা ধরে রেখেছে দেশের শেয়ারবাজার। রোববার টানা চতুর্থ কার্যদিবসের মতো সূচক বেড়েছে দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে। দরবৃদ্ধি ও লেনদেনে দাপট দেখা গেছে ব্যাংকিং খাতের। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দরবৃদ্ধির শীর্ষ ১০ তালিকায় অর্ধেকই ছিল ব্যাংক।

বাজার-সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্তমান মূল্য আয় (পিই) অনুপাত বিবেচনায় ব্যাংকিং খাত নিয়ে বিনিয়োগকারীদের দীর্ঘমেয়াদি আশাবাদ অনেক। খেলাপি ঋণ, নিট সুদ আয়ের ওপর চাপসহ নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও ব্যবসা ও মুনাফা বাড়িয়ে যাচ্ছে ব্যাংকগুলো। গত দুই বছর ব্যাংকের শেয়ার থেকে নগদ ও স্টক মিলে ভালো লভ্যাংশ পেয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। পোর্টফোলিওতে ব্যাংকের শেয়ার ধরে রেখে আগামী কয়েক হিসাব বছর লভ্যাংশ গ্রহণের পরিকল্পনা রয়েছে তাদের একটি বড় অংশের।

বাজারের গড় পিই ১৭ ছাড়ালেও ব্যাংকিং খাতের গড় পিই অনুপাত এখনো ১১-এর নিচে। ইন্ডাস্ট্রির ব্যবসা প্রবৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে এ দরে ব্যাংকের শেয়ার যথেষ্ট আকর্ষণীয় বলে মনে করছেন অনেক অভিজ্ঞ বিনিয়োগকারী।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসের খাতভিত্তিক চিত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, পাট খাতের পর বাজার মূলধন সবচেয়ে বেশি বেড়েছে ব্যাংকিং খাতের, ২ দশমিক ৩৮ শতাংশ। রোববার ডিএসইর মোট লেনদেনের ৩৬ শতাংশই ছিল বিভিন্ন ব্যাংকের শেয়ারের দখলে। রোববার ১ শতাশের বেশি বেড়েছে সিমেন্ট, চামড়া ও কাগজ-মুদ্রণ খাতের। বিপরীতে দর সংশোধনে এগিয়েছিল টেলিযোগাযোগ, সিরামিক, বীমা, খাদ্য-আনুষঙ্গিক, সেবা-আবাসন ও ভ্রমণ অবকাশ খাতের শেয়ার।

ডিএসইতে রোববার ৩৩০টি কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড ও করপোরেট বন্ডের ৩৯ কোটি ৫৬ লাখ ৪ হাজার ২১৬টি শেয়ার বা ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এগুলোর বাজারদর ১ হাজার ২০৮ কোটি ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৩২৯ টাকা।

ঢাকার বাজারের ব্রড ইনডেক্স ডিএসইএক্স ৩৬ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ২৪০ দশমিক ৫৭ পয়েন্ট, ব্লু-চিপ সূচক ডিএস-৩০ আগের কার্যদিবসের চেয়ে ১ দশমিক ৪৩ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২২৬ দশমিক ৬২ পয়েন্ট এবং শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ৬ দশমিক ৩২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩৯১ দশমিক ৫৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেনকৃত সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৩৮টির, কমেছে ১৫১টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪১টি কোম্পানির শেয়ার।

লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) ডিএসইতে সবার ওপরে ছিল ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, আরগন ডেনিমস, সিটি ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক ও সিএমসি কামাল।

দরবৃদ্ধির শীর্ষে ছিল— রূপালী ব্যাংক, আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, কোহিনূর কেমিক্যাল, ম্যারিকো, প্রাইম ব্যাংক, মেঘনা সিমেন্ট, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ ও এক্সিম ব্যাংক লিমিটেড।

অন্যদিকে দরপতনের শীর্ষে ছিল স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকস, সাভার রিফ্র্যাক্টরিজ, এশিয়া প্যাসিফিক ইন্স্যুরেন্স, মুন্নু সিরামিকস, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, দুলামিয়া কটন, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, মিথুন নিটিং, হাক্কানী পাল্প ও ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স।

এদিকে দেশের আরেক শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) রোবাবর সব সূচক বাড়লেও দিন শেষে কিছু পয়েন্ট হারিয়েছে সেখানকার ব্লু-চিপ সূচক সিএসই-৩০। চট্টগ্রামের বাজারে রোববার লেনদেন হয়েছে ১৮৪ কোটি টাকার বেশি, আগের দিন যা ছিল ১৫৫ কোটির ঘরে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY