বাবা হারালেন স্বস্তিকা মুখার্জি

0
63

৬৮ বছর বয়সে চলে গেলেন কলকাতার খ্যাতিমান অভিনেতা সন্তু মুখার্জি। তিনি জনপ্রিয় অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জির বাবা। বেশ কিছুদিন ধরেই অভিনেতা বেশ অসুস্থ ছিলেন। তার ব্লাডসুগার এবং হাইপারটেনশনের সমস্যা ছিল। পাশাপাশি চলছিল ক্যান্সারের চিকিৎসাও। এত সমস্যার সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পারেননি। বুধবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতায় নিজের বাড়িতেই তার মৃত্যু হয়।

সন্তু মুখার্জির মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন তার মেয়ে স্বস্তিকা মুখার্জী। বাবার প্রতি ভিষণ মায়া ছিল মেয়ের। বিভিন্ন সময়ে সেসবের নজিরও পাওয়া গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অভিনেতার মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন নাটক ও চলচ্চিত্রের বহু অভিনয়শিল্পী ও কণ্ঠশিল্পী। প্রয়াত সন্তু মুখার্জী ছোট-বড় দুই পর্দায়ই কৃতিত্বের সঙ্গে কাজ করেছেন।

অসুস্থ অবস্থায় কিছুদিন আগেই কলকাতার ঢাকুরিয়ায় আমরি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল স্বস্তিকার বাবা সন্তু মুখার্জিকে। সেসময় তীব্র শ্বাসকষ্টের সঙ্গে তার ড্রাউজিনেসের সমস্যা ছিল। হাসপাতালের তরফ থেকে তখন জানানো হয়েছিল, সন্তু মুখার্জীর রক্তে হিমোগ্লোবিন ও পটাশিয়ামের মাত্রা অনেকটা কমে গেছে। পরে কিছুটা সুস্থ হয়ে তিনি বাড়িতে ফেরেন।

১৯৮৫ সালে পরিচালক তরুণ মজুমদারের ‘সংসার সীমান্তে’ ছবিটির মাধ্যমে কলকাতার চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু করেছিলেন প্রয়াত অভিনেতা সন্তু মুখার্জি। এরপর প্রায় শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি বাঙালি দর্শকের মন জয় করেছেন। টেলিভিশনেও নিয়মিত অভিনয় করতেন সন্তু মুখার্জি। তার অভিনীত টিভি সিরিয়ালের সংখ্যা বহু।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY